এক যে আছেন

শৈলেন্দ্র হালদার
0 রেটিং
274 পাঠক

এক যে আছেন ছদ্মবেশী লেখেন পদাবলী,

কন্ঠে কিসের ঝরনা ছোটে ? বেরয় গানের কলি ?

বালক খোলেন মনজানালা, দৃশ্য পরিভ্রমণ……….

দেখেন পুকুর বটের ছায়া, ঠিক যেন সে শ্রমন !

কখনো বা নাটক করেন মজেন রিহার্সালে,

বউ-ঠাকুরন স্নেহের হাতটি রাখেন পলে পলে।

গোয়েন্দা না বিপ্লবী সে,ভানু কিংবা সিংহ ?

ভারত তথা বিশ্ব সভায় বলেন, ‘আমি কিং হো’।

রাঙামাটির দেশে থাকেন, শহর অফিস পাড়া-

কলকাতাতে বাসে ট্রেনে ঘোরেন পাগল পারা।

কখনো বা জাহাজ ধরে কালাপানির দেশে-

পদ্মাবোটে বছর বছর থাকেন তিনি ভেসে।

ভেতর ভেতর স্বদেশী সে পরেন তো আলখাল্লা,

এমন মানুষ কেমনে চিনি বুঝিনা ছাই আল্লা।

পদ্য-নাটক-গল্প লেখেন আবার ছবি আঁকা,

এইতো আছেন জাপান -চীনে নয়তো বিলেত-ঢাকা।

মস্ত যে তার জমিদারি কাজের তো নেই ছুটি,

ভুবনডাঙ্গা থেকে ছোটেন শিলাইদহ কুঠি।

পোশাক-আশাক আজব রকম পরনে নীল জোব্বা,

নামের মানে লুকিয়ে আছে যখন ভাবি রোববার।

নামটা ভেবে বলতো দেখি আঁকলাম কার ছবি ?

খ্যাতির বিড়ম্বনায় বুঝি লুকোন বিশ্বকবি।

রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর তিনি বিশ্বজোড়া নাম,

সামান্য এই ছড়ায় তাঁকে প্রণাম জানালাম।

আপনার রেটিং দিন:
[Total: 0 Average: 0]
আপনার বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুন:

রেটিং ও কমেন্টস জন্য



নতুন প্রকাশিত