10 টি চটজলদি সুস্বাদু টিফিনের রেসিপি

কৃষ্ণা নন্দী
5 রেটিং
240 পাঠক

সে কর্মরতা হন বা হোম মেকার টিফিনের চিন্তা সকলের এক। সকাল হলেই চিন্তা কি দেব ছোটদের টিফিনে।কি করে দিলে ওদের মুখ গুলো হাসিতে ভরে উঠবে।আর সেই হাসি দেখে আমাদের মায়েদের মন টাও আনন্দে ভরে যাবে। তাই আমি কিছুচটজলদি টিফিনের কথা ভেবেছি।আর তা আপনাদের সাথে শেয়ার করতে চাই।

পাউরুটির চপ:

 উপকরণ-চার পিস পাউ রুটি,সেদ্ধ একটি গাজর ,বিট , আলু,ও ফুলকপি থেকে ছাড়ানো কয়েকটি টুকরো,সাদা তেল,চাট মশলা,আন্দাজ মতো ধোনে গুঁড়ো অল্প লিঙ্কা গুঁড়ো আর নুন।প্রণালী-প্রথমে সেদ্ধ করা আলু ,গাজর, বিট ভালোকরে চটকে মেখে নিন।এবার তাতে ফুলকপির টুকরো গুলো মিশিয়ে নিন।তার পর এক চা চামচ জিরে,ধোনে গুঁড়ো ও চাটমসলা মিশিয়ে স্বাদ মতো নুন দিয়ে ভালো করে নেড়ে চেড়ে নামিয়ে রাখুন।এবার পাউরুটির টুকরো গুলো থেকে চারধারে ব্রাউন জায়গা টা বাদ দিয়ে দিন  তারপর পাউরুটির টুকরো গুলোতে সামান্য জলের ছিটে দিন তারপর একটা হাতের তালু তে তুলে পুর টা দিন তার উপর এবার আরেকটা টুকরো নিয়ে হাত দিয়ে চেপে চেপে ডিমের মতন করে ছাকা তেলে ভেজে নিন । তৈরী আপনার পাউরুটির চপ

ময়দা দিয়ে সহজ নাস্তা  :

প্রথমে বড়ো এক টেবিল চামচ ময়দা,দুটো ডিম,পেঁয়াজ কুচি,ধোনে ওয়াটা কুচি,অল্প পরিমাণ সোয়া সস, দুধ,স্বাদ মতো নুন। এবার প্রথমে একটি বোলে ময়দা নিন।তাতে ডিম দুটো ফাটিয়ে দিন,এবার পেঁয়াজ কুচি,ধনে পাতা কুচি বড়ো এক টেবিল চামচ করে মিশিয়ে দিন ।আপনি ইচ্ছে করলে এতে গাজর ,ক্যাপসিকাম ও দিতে পারেন।এবার এক হাতা দুধ, নুন সয়া সস মিশিয়ে ভালো করে ফেটিয়ে নিন । তারপর প্যান এ ত গরম করে। ওমলেটের মতো করে ভেজে নিন ।এবার আপনি পরিবেশন করুন।

ডিম ছোটদের সকলের প্ৰিয় তাই ডিম দিয়ে একটি  সহজ টিফিন:

প্রথমে একটি বোলে পোলাও করার চাল দিয়ে ভাত করে রাখুন।এবার সেটা জল ঝরিয়ে একটি বাটি তে তুলে রাখুন।এবার একটা বাটি তে ছটি ডিম ফাটিয়ে তাতে পেঁয়াজ কুচি,অল্প পরিমাণ লঙ্কা কুচি,এক টেবিল চামচ সোয়া সস ও স্বাদ মতো নুন দিয়ে ভাল করে মিশিয়ে নিন।এবার মিশ্রন টি তে বড়ো টেবিল চামচের চার চামচ রান্না করা ভাত মিশিয়ে দিন।এবার প্যানে তেল গরম করে ওমলেটের মতো করে ভেজে নিলে তৈরি আপনার সহজ টিফিন।

নারকলের পুরের সিঙ্গারা :

প্রথমে নিন এক বাটি ময়দা ,নারকোল কোরা,কুচোন পেঁয়াজ,অল্প লঙ্কা কুচি,অল্প আদা কুচি আর সাদা তেল।এবার আপনি ময়দা ভালো করে মেখে সরিয়ে রাখুন।তারপর নারকোল কোরার সাথে পেঁয়াজ কুচি ,এক চামচ আদা কুচি,যদি ছোটো রা ঝাল খেতে না পারে তবে লঙ্কা বাদ দিতে পারেন।এবার স্বাদ মতো     নুন ,চিনি মিশিয়ে নিন ।এবার ময়দা মাখা টা লেচি করে লুচি মতন বেলে নিন।তারপর তার ভিতরে চামচ দিয়ে পুর টা পুরে সিঙ্গারা আকারে তৈরী করুন ।প্যানে তেল দিয়ে ভেজে নিন।

আলু পুরি :

দুটি বড়ো আলু সিদ্ধ একটিবারও পেঁয়াজের বেরেস্তা ,দুটো শুকনো লঙ্কা ভাজা,আর মোয়াম দিয়ে ময়দা মাখা।এবার আলু দুটো কে চটকে নিন ,পেঁয়াজ বেরেস্তার সাথে লঙ্কা মিশিয়ে আলুর সাথে মিশিয়ে দিন।এবার তার সাথে স্বাদ মতো নুন চাট মশলা মিশিয়ে মেখে নিন। ময়দা কে লেচি করে তার ভিতরে  পুর দিয়ে হাতের সাহায্যে লুচির আকারে তৈরি করে নিন। এবার সেগুলো ভেজে নিন।তৈরি আলু পুরি

পুর ছাড়া আলুর চপ :

প্রথমে চারটে সিদ্ধ আলু নিন।  লঙ্কা কুচি ,ধোনে পাতা কুচি,স্বাদ মতো নুন মেখে নিন ।এরপর মাখা আলু টা হাত দিয়ে littir আকারে বানিয়ে নিন । এবার প্যানে অল্প তেল দিয়ে কম আঁচে বসিয়ে দিন ।এবার litti গুলি প্যানে সাজিয়ে দিন। এবার সময় নিয়ে লাল করে ভাজুন।

পাউরুটির পোলাও: 

প্রথমে পাউরুটি গুলোর চারিদিক ছাড়িয়ে ছোট ছোট পিস করে নিন।এবার গাজর ,ফুলকপি, ক্যাপসিকাম, ছোট ছোট টুকরো করে অল্প সিদ্ধ করে জল ঝরিয়ে নিন।এবার দুটি ডিমের ভুজিয়া বানিয়ে রাখুন।তারপর প্যানে তেল দিয়ে সিদ্ধ করা গাজর, ফুলকপি,ক্যাপসিকাম দিয়ে দিন অল্প নাড়াচাড়া করে পাউরুটির টুকরো গুলো দিয়ে দিন।তবে একটা কথা পাউরুটির টুকরো গুলো তে অল্প জলের ছিটে দিয়ে আগে থেকে ভিজিয়ে রাখুন।এবার আপনি স্বাদ মতো নুন অল্প চিনি দিয়ে ভালো করে ভাজুন।ভাজা হয়ে এলে অল্প টম্যাটো সস,ও চিলি সস দিয়ে আবারও একটু নাড়াচাড়া করে নামিয়ে নিন। নামানোর আগে ডিমের ভুজিয়া মেশাতে ভুলবেন না।

পাউরুটির পানতুয়া:

পারুটির পিস গুলো থেকে ব্রাউন পার্ট গুলো বাদ দিয়ে দিন।তারপর পিস গুলো কে চৌকো করে কেটে নিন।তারপর একটি বাটিতে এক কাপ দুধ নিয়ে  পাউরুটির টুকরো গুলো কিছুক্ষন ভিজিয়ে রাখুন।এবার প্যানে তেল দিয়ে পাউরুটির টুকরো গুলো ভেজে নিন। অন্য একটি চুলাতে জল ও চিনি দিয়ে পাতলা করে সিরা বানিয়ে রাখুন ও ঠান্ডা হতে দিন।তারপর ভাজা পাউরুটি গুলো  ভিজিয়ে দিন।এভাবে 15-20 ,মিনিট ভিজিয়ে রাখুন।ব্যাস তৈরি আপনার পাউরুটির পানতুয়া।

ডিমের সহজ নাস্তা:

প্রথমে 6 টি ডিম নিন।এবার একটি বোলে ডিম গুলো ফাটিয়ে নিন।তাতে স্বাদ মতো নুন,গোল মরিচ দিয়ে ভালো করে ফেটিয়ে নিন।এবার মিশ্রন টিতে এক কাপ মতো দুধ মেশান।তারপর শীতের যত রকম সবজি যেমন গাজর, ফুলকপি,বিট,ক্যাপসিকাম, ভালো করে চপ করুন।200grবোনলেস চিকেন ছোট ছোট পিস করে রাখুন।এবার একটি প্যানে দু চামচ তেল বা মাখন দিন।তারপর তাতে আগে থেকে কুচন একটি বড় পেঁয়াজ দিয়ে দিন। পেঁয়াজ তা লাল হলে এবার একে একে চিকেন,গাজর,বিট,ক্যাপসিকম দিয়ে ভালো করে ভাজুন স্বাদ মতো নুন অল্প ভাজা মশলা ভালো করে নাড়াচাড়া করুন।এভাবে 15-20মিনিট রান্না করুন।তারপর অন্য একটি পাত্রে নামিয়ে রাখুন।এবার আবার একটি প্যানে অল্প তেল ব্রাশ করে দিন আর   প্যানে প্রায় অর্ধেক পরিমান ডিমের মিশ্রন টি ঢেলে দিন।তারপর সেটিকে dhosa র মতো গোল করে প্যানের চারি দিকে ছড়িয়ে নিন।এবার তার উপরে আগে থেকে তৈরি করা পুর টি চেপে চেপে লম্বা করে দিয়ে দিন।তারপর কিছুটা চিজ গ্রেট করে দিন।এবার সেটি কে রোলের মতো করে মোড়াতে থাকুন আর বাকি ডিমের মিশ্রন টি অল্প অল্প করে দিতে থাকুন।পুরো মিশ্রন টি দেওয়া হয়ে গেলে গরম অবস্থাতে পিস পিস করে কেটে নিন।এর উপর কিছুটা চিজ আবার গ্রেট করে দিন।তারপর পরিবেশন করুন।

ময়দার তৈরি ব্রেকফাস্ট:

 একটি বাটি তে এক কাপ ময়দা, বড়ো এক চামচ গুঁড়ো দুধ মিশিয়ে ঠান্ডা জল দিয়ে একটি বেটার তৈরি করে নিন।দেখবেন বেটার টি যেন খুব পাতলা বা খুব ভারী না হয়।বেটার টি তে স্বাদ মতো নুন মেশাতে ভুলবেন না।এবার একটি প্যানে দু চামচ তেল দিয়ে তাতে বড়ো করে কুচোন পেঁয়াজ নরম নরম করে ভেজে নিন ।এবার এটিতে আগে থেকে সিদ্ধ করা আলু ভালো করে মেখে নিয়ে মিশিয়ে দিন।এটি অল্প ভাজা হলে আগে থেকে কুচোন দুটো টম্যাটো, ভাজা বাদাম,স্বাদ মতো নুন ও কুচোন ধোনে পাতা দিয়ে আরো কিছুক্ষণ নাড়াচাড়া করে নামিয়ে রাখুন।এবার অন্য চুলা তে প্যান বসিয়ে সাদা তেল ব্রাশ করে দিন।এবার বড়ো হাতা দিয়ে ময়দার মিশ্রন টি এক হাতা ঢেলে দিন।আর ছোট ছোট রুটির মতন তৈরি করে নিন বেশ কয়েকটি।তারপর একটি বাটি তে অল্প ময়দা গুলে রাখুন। এখন রুটির মতন যে গুলো তৈরি করেছেন  তার ভিতরে পুর ভরে চৌকো চৌকো করে বানিয়ে নিন । এ কাজ টি করার সময় ময়দার গোল টির ব্যাবহার করুন।এবার প্যানে দু চামচ সাদা তেল দিন।আর বানান চৌকো রুটির মতন গুলো প্যানে দিন আর দেওয়ার সময় দেখবেন রুটির যে জায়গা গুলো আপনি মুড়ে ছেন সেগুলো যেন প্যানের নিচের দিকে থাকে।এভাবে 7 মিনিট উল্টেপাল্টে ভেজে নিন।আর তৈরি আপনার সুস্বাদু ব্রেকফাস্ট।

আমি যে খাবার গুলো আপনাদের সাথে শেয়ার করলাম তা শুধু সুস্বাদু নয় স্বাস্থ্যকর ও বটে।

চিত্র সৌজন্য : গুগল

আপনার রেটিং দিন:
[Total: 1 Average: 5]
আপনার বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুন:

রেটিং ও কমেন্টস জন্য



নতুন প্রকাশিত