যে বল খেলার নয়, খাওয়ার!

আভেরী চৌধুরী
5 রেটিং
246 পাঠক

“খাও খাও বুঁদ হয়ে ডুবে যাও

দেখো চোখে চোখে সর্ষে ফুল

করুক মাথা ঝিমঝিম”

আজ যে রেসিপিটির কথা বলতে যাচ্ছি,তাতে চোখে সর্ষেফুল না দেখলেও মাত্রা বেশি হলে অল্প মাথা ঝিমঝিম করতেই পারে। লকডাউন পর্বে মদের দোকান খোলা মাত্রই যেভাবে দোকানে দোকানে লম্বা লাইন পড়ে গিয়েছিল, সে দৃশ্য দেখে এই রেসিপির কথা মনে এসেই গেল। 

       কেক প্রেমীদের কাছে ‘ রাম বল ‘ নামটি অপরিচিত কিছু নয়। এই প্রতিবেদকের সাথে তার প্রথম আলাপ বিখ্যাত কনফেকশনারি সংস্থা ক্যাথলিন এর একটি আউটলেটে। প্রথম স্বাদ ছিল বড়ই মধুর। বেকিং এর নেশা থাকায় বাড়িতে বানানোর চেষ্টাও চলতে থাকে, এবং ফল হয় চমকপ্রদ। কেক বানানোর রেসিপি অনেকেই জানেন, তাও একবার ঝালিয়ে নেওয়া যাক।

উপকরণ: রাম বল বানাতে আমাদের লাগে,

১। এক কাপ ময়দা।

২। আধ কাপ কোকো পাউডার।

৩। এক কাপ চিনি।

৪। এক কাপ তেল।

৫। দুটি ডিম।

৬। হাফ টি স্পুন ভ্যানিলা এসেন্স।

৭। হাফ টি স্পুন বেকিং পাউডার।

৮। বেকিং সোডা (১/৪ টি স্পুন)।

৯। অর্ধেক চামচ জায়ফল।

১০। দুই টি স্পুন রাম।

       কেকের জন্য প্রয়োজনীয় ড্রাই ফ্রুটস আগেরদিন থেকে রাম বা ওয়াইনে ভিজিয়ে রাখলে ভাল হয়।

প্রণালী:

   প্রথমে ডিম, তেল, চিনি ভাল করে ফেটিয়ে নিয়ে তাতে dry ingredients দিয়ে ভাল করে মিশিয়ে নিতে হবে। ড্রাই ফ্রুটস এবং জায়ফল গুঁড়ো মিশিয়ে রাম ও ভ্যানিলা এসেন্স দিতে হবে। পূর্বেই উত্তপ্ত ওভেনে ১৮০ ডিগ্রি সেলসিয়াস তাপমাত্রায় আধঘন্টা থেকে চল্লিশ মিনিট বেক করতে হবে । তার পরেও যতক্ষণ না পুরোপুরি ঠান্ডা হচ্ছে, ওভেন থেকে বের না করাই ভাল। 

       রাম বল বানাতে কেকটিকে ঠান্ডা করে ভেঙে টুকরো করে নিন যাতে ঝুড়ো  হয়ে যায়। এরপর তাতে মেশান কুচোনো ড্রাই ফ্রুটস, দুই টেবল স্পুন melted butter এবং পরিমাণমত রাম। Walnut দিলে ভাল হয়। রাম এমনভাবে মেশান যাতে কেক টিকে ছোট ছোট বল হিসেবে পাকানো যায়। ইচ্ছে হলে চকোলেট চিপস ও মেশাতে পারেন। এবার বলগুলি ফ্রিজে রাখুন। একটি পাত্রে ডার্ক চকোলেট গলিয়ে নিন। আমুল সহ অন্যান্য অনেক সংস্থার ডার্ক চকোলেট বাজারে সহজলভ্য। কেক বল গুলি বের করে melted chocolate এর মধ্যে ডুবিয়ে তুলে নিন। উপরে অল্প nuts বা sprikler ছড়িয়ে আবার ৩০ মিনিট মত ফ্রিজে রাখুন যাতে চকোলেট জমে যায়।

পরিবেশন:

         তারপর আর কি! নিজেদের রসনা তৃপ্তির কাজে লেগে পড়ুন! মনে রাখবেন রাম এর পরিমাণ সম্পূর্ণ আপনাদের রুচির উপর নির্ভর করবে। যারা সোশ্যাল ডিসটেন্স বজায় রাখতে গিয়ে মিষ্টির দোকান বা ড্রিঙ্কস এর দোকানে লাইন দেখে, নিজে না যেতে পারার জন্য হাহুতাশ করছেন, তাদের কাছে রাম বল এক ঢিলে দুই পাখি মারার সুযোগ করে দিতে পারে। 

আপনার রেটিং দিন:
[Total: 1 Average: 5]
আপনার বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুন:

রেটিং ও কমেন্টস জন্য



নতুন প্রকাশিত